ঢাকাবৃহস্পতিবার , ১৩ জুলাই ২০২৩
  1. ই পেপার
  2. ক্যাম্পাস
  3. খেলা
  4. চাকরি
  5. জাতীয়
  6. জীবনযাপন
  7. ধর্ম
  8. পাঠক কলাম
  9. পাবনা জেলা
  10. বাণিজ্য
  11. বাংলাদেশ
  12. বিজ্ঞান-প্রযুক্তি
  13. বিনোদন
  14. বিশেষ সংবাদ
  15. বিশ্ব

ঈশ্বরদী বেনারসি পল্লী প্রকল্পের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে একাধিক নারীকে ধর্ষনের অভিযোগ

বার্তা কক্ষ
জুলাই ১৩, ২০২৩ ৭:০৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

স্টাফ রিপোর্টার :
পাবনার ঈশ্বরদী বেনারসি পল্লী প্রকল্পের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খন্দকার ওবাইদুর রহমান জিলানীর বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সহ একাধিক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।
ভুক্তভোগী নারী শারমিন (ছন্মনাম) জানায়, ফেসবুকের মাধ্যমে বন্ধুত্ত হয় তাদের। একপর্যায়ে তাদের প্রথম দেখা হয় পাবনার টেবুনিয়াতে৷ এরপর দেখা করার জন্য ঈশ্বরদী বেনারসি পল্লী প্রকল্পে নিয়ে আসেন অভিযুক্ত খন্দকার ওবাইদুর রহমান জিলানী৷ সেখানে নিজ অফিস রুমেই জোর পূর্বক ধর্ষণ করেন শারমিনকে (ছদ্মনাম)। এরপর বিয়ে করার আশ্বাস দিয়ে সেখান থেকে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। পরবর্তীতে বিয়ে করার কথা বলে ঢাকার বিভিন্ন হোটেল সহ তার কয়েকজন আত্মীয়ের বাসায় নিয়ে ধর্ষণ করেন অভিযুক্ত ওবাইদুর রহমান জিলানী। এক পর্যায়ে বিয়ে করার কথা বলে টালবাহানা করতে থাকে।

ভুক্তভোগী নারী আরো জানায়, এ সকল বিষয়ে অভিযুক্ত ওবাইদুর রহমান জিলানীর বাবা নাটোরের লালপুর উপজেলার ২ নং ঈশ্বরদী ইউনিয়ন পরিষদের ৫ নং ওয়ার্ডের মেম্বার খন্দকার আব্দুল মান্নান মুকুলকে জানালে তিনি তার ছেলের সাথে বিয়ে দেওয়ার আশ্বাস দেয়। কিন্ত পরবর্তীতে জানা যায় আরেকজন মেয়ে রুমির (ছদ্মনাম) সাথেও আমার মতোই দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক ও শারীরিক সম্পর্ক রয়েছে। তাকেও বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে টালবাহানা দেখিয়ে আসছে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ওবাইদুর রহমান জিলানীর বাবা খন্দকার আব্দুল মান্নান মুকুলের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি আমার ছেলের সাথে কথা বলেছি। আমার ছেলের সাথে দুইটি মেয়ের সম্পর্ক আছে বলে আমি জেনেছি। একারণে আমি আমার ছেলেকে বলেছি যে কোনো একটি মেয়েকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নিয়ে আমাকে জানাও। দুইজনের সাথে বিয়ে দেওয়া তো সম্ভব না৷

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ওবাইদুর রহমান জিলানীর সাথে যোগাযোগ করার চেস্টা করা হলে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি৷ তবে একাধিক ব্যাক্তিদের দিয়ে টাকার বিনিময়ে ম্যানেজ করার চেস্টা করেন।

এ সকল বিষয়ে ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অরবিন্দ সরকারের সাথে কথা হলে তিনি জানায়, এ ঘটনায় কেও থানায় কোনো লিখিত অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

দৈনিক এরোমনি প্রতিদিন ডটকম তথ্য মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধন প্রক্রিয়াধীন অনলাইন নিউজ পোর্টাল