ঢাকাসোমবার , ১১ ডিসেম্বর ২০২৩
  1. ই পেপার
  2. ক্যাম্পাস
  3. খেলা
  4. চাকরি
  5. জাতীয়
  6. জীবনযাপন
  7. ধর্ম
  8. পাঠক কলাম
  9. পাবনা জেলা
  10. বাণিজ্য
  11. বাংলাদেশ
  12. বিজ্ঞান-প্রযুক্তি
  13. বিনোদন
  14. বিশেষ সংবাদ
  15. বিশ্ব

বিদেশি শিক্ষার্থী ও শ্রমিকদের জন্য ভিসানীতি কঠিন করছে অস্ট্রেলিয়া

বার্তা কক্ষ
ডিসেম্বর ১১, ২০২৩ ২:২৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
যুক্তরাজ্যের পর এবার অস্ট্রেলিয়াও খগড়হস্ত হতে যাচ্ছে বিদেশি শিক্ষার্থী ও শ্রমিকদের ওপর। বিশেষ করে অদক্ষ শ্রমিকদের অস্ট্রেলিয়া কঠিন হয়ে যাবে। আগামী দুই বছরের মধ্যে অভিবাসী গ্রহণের পরিমাণ অর্ধেকে নামিয়ে আনার ঘোষণা দিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার সরকার। দেশটির ‘ভঙ্গুর’ অভিবাসন ব্যবস্থাকে ঠিক করার লক্ষ্যে এমন পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

১১ ডিসেম্বর, সোমবার অস্ট্রেলিয়া সরকার ঘোষণা দিয়েছে, বিদেশি শিক্ষার্থী ও অদক্ষ জনবলের অস্ট্রেলিয়ায় প্রবেশের ক্ষেত্রে ভিসানীতি কঠিন করা হবে।

২০২৫ সালের জুন নাগাদ বার্ষিক অভিবাসী গ্রহণের সীমা আড়াই লাখে নামিয়ে আনতে চায় অস্ট্রেলিয়ার সরকার। করোনাভাইরাস মহামারির আগে প্রতি বছর প্রায় এই পরিমাণ মানুষ অস্ট্রেলিয়ায় অভিবাসী হিসেবে যেত।

সরকারের নতুন পরিকল্পনা অনুযায়ী, আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থী ও অদক্ষ কর্মীদের জন্যও ভিসানীতি কঠোর করা হবে। অস্ট্রেলিয়ায় রেকর্ড পরিমাণ অভিবাসী প্রবেশ করায় দেশটির আবাসন ও অবকাঠামো সেক্টরে চাপ বেড়েছে।

এরপরই এমন সিদ্ধান্তের কথা জানাল দেশটির সরকার। তবে অভিবাসী প্রবেশের পরিমাণ বাড়লেও এখনও দক্ষ শ্রমিকের ঘাটতি রয়েছে অস্ট্রেলিয়ায়। দক্ষ শ্রমিকদের টানতে ব্যর্থ হচ্ছে দেশটি।

অস্ট্রেলিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ক্লেইর ও’নিল সোমবার (১১ ডিসেম্বর) এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, আগের সরকারের অধীনে অভিবাসন ব্যবস্থা ‘বিশৃঙ্খল’ অবস্থায় পতিত হয়েছিল। এদিন দেশটির ১০ বছর মেয়াদি অভিবাসন কৌশলের বর্ণনা করে গিয়ে এ কথা বলেন ও’নিল।

২০২৩ সালের জুন মাস পর্যন্ত এক বছরে রেকর্ড ৫ লাখ ১০ হাজার মানুষ অস্ট্রেলিয়ায় অভিবাসী হিসেবে প্রবেশ করেছে। ও’নিল বলেন, তার সরকার ‘এই সংখ্যাটা আবারও নিয়ন্ত্রণে আনবে’ এবং বার্ষিক অভিবাসী নেয়ার সংখ্যা প্রায় ৫০ শতাংশ কমিয়ে আনবে।

দৈনিক এরোমনি প্রতিদিন ডটকম তথ্য মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধন প্রক্রিয়াধীন অনলাইন নিউজ পোর্টাল